যে-সব এলাকায় লকডাউন খুলে দেওয়া হবে এইমাএ জানালেন শেখহাসিনা |

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশের আট বিভাগে সর্বশেষ গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ২৩০ জনের জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ১৩৩ জন ও নারী ৯৭ জন।

এ নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৪১৯ জনে। তাদের মধ্যে পুরুষ ১১ হাজার ৫০৮ জন ও নারী চার হাজার ৯১১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৩০ জনের মধ্যে খুলনা বিভাগে সর্বোচ্চসংখ্যক ৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য বিভাগের মধ্যে ঢাকায় ৫৬ জন, চট্টগ্রাম ৩৯ জন, রাজশাহীতে ২৬ জন, বরিশালে আটজন, সিলেটে আটজন, রংপুরে ২২ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে পাঁচজনের মৃত্যু হয়।

কোন জেলায় কত মৃত্যু

ঢাকা বিভাগ: ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে মারা যাওয়া ৫৬ জনের মধ্যে ঢাকা মহানগরীতে ২৯ জন, ফরিদপুরে চারজন, গাজীপুরে ছয়জন, গোপালগঞ্জে চারজন, কিশোরগঞ্জে দুইজন, মাদারীপুরে দুইজন, নারায়ণগঞ্জে একজন, নরসিংদীতে একজন, রাজবাড়ীতে একজন, শরীয়তপুরে একজন এবং টাঙ্গাইলের পাঁচজন রয়েছেন।

ময়মনসিংহ বিভাগ: মৃত পাঁচজনের মধ্যে ময়মনসিংহে একজন, নেত্রকোনায় একজন, জামালপুরে একজন এবং শেরপুরের দুইজন রয়েছেন।

চট্টগ্রাম বিভাগ: মারা যাওয়া ৩৯ জনের মধ্যে চট্টগ্রামে ১৭ জন, রাঙ্গামাটিতে একজন, খাগড়াছড়িতে একজন, ফেনীতে একজন, নোয়াখালীতে ছয়জন, কুমিল্লায় ১০ জন এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিনজন রয়েছেন।

রাজশাহী বিভাগ: মৃত ২৬ জনের মধ্যে রাজশাহীতে দুইজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ একজন, নাটোরে নয়জন,পাবনায় তিনজন, সিরাজগঞ্জে তিনজন, বগুড়ায় তিনজন এবং জয়পুরহাটের তিনজন রয়েছেন।

খুলনা বিভাগ: বাগেরহাট জেলায় তিনজন, চুয়াডাঙ্গায় ছয়জন, যশোরে নয়জন, ঝিনাইদহে পাঁচজন, খুলনায় ১১ জন, কুষ্টিয়ায় ১৩ জন, মাগুরায় ছয়জন, মেহেরপুরে ছয়জন এবং নড়াইলে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে।

রংপুর বিভাগ: মৃত ২২ জনের মধ্যে রংপুরে ছয়জন, পঞ্চগড় একজন, নীলফামারীতে একজন, লালমনিরহাটে একজন, কুড়িগ্রামে দুইজন, ঠাকুরগাঁওয়ে দুইজন, দিনাজপুরে পাঁচজন এবং গাইবান্ধা জেলার চারজন রয়েছেন।

বরিশাল বিভাগ: মোট আটজনের মধ্যে পটুয়াখালীর দুইজন, পিরোজপুরের দুইজন, বরগুনার একজন এবং ঝালকাঠির তিনজনের মৃত্যু হয়।

Author: Zdravlje

Leave a Reply

Your email address will not be published.